শনিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ফ্রান্স বাংলা প্রেস ক্লাবে’র ব্যানারে জামাতের প্রতিবাদ সভা  » «   ফরাসী পতাকার ৩ টি রং এর মানে কি?  » «   Victor Hugo এর সংক্ষিপ্ত জীবনী  » «   পানির উচ্চতা মাপার কাজে নিয়োজিত জুয়াভ  » «   রাইয়াদ আদ্দীন তিশান এর ১ম জন্মদিন উদযাপন  » «   দেশব্যাপী জামায়াতের হরতাল চলছে  » «   শাবি ছাত্রের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার  » «   আজ বিশ্ব মা দিবস  » «   নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ৬  » «   সাংবাদিকদের জন্য নবম ওয়েজ বোর্ড গঠনের আহ্বান রওশনের  » «   সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের নির্বাচন আজ  » «   নির্ঘুম রাতে ডাকাত আতঙ্ক এ ব্যর্থতা কার ?  » «   প্রচারণা শেষ : সিলেটের তিন উপজেলায় ভোটের লড়াই কাল  » «   জামায়াত হরতাল ডাকায় পিছিয়েছে এইচএসসি পরীক্ষা  » «   নিজামীর ফাঁসির রায় বহাল রাখায় সিলেটে আনন্দ মিছিল  » «  

৩১ আঙুলের মানবশিশু!

china_baby_with_31fingersআন্তর্জাতিক ডেস্ক ::
তিন মাসের ছোট্ট শিশু, নাম হংহং। খবরের পাতায় তার উঠে আসার কারণ হলো, যেখানে মানবদেহে ২০টি আঙুল থাকা স্বাভাবিক, সেখানে এই শিশুটি হাতে ও পায়ে মোট ৩১টি আঙুল নিয়ে জন্মেছে।

‘পলিড্যাক্টিলিজম’, জন্মগত একরকম ত্রুটি, যার ফলে শিশুরা মাতৃগর্ভে থাকার সময় থেকেই স্বাভাবিকের তুলনায় অতিরিক্ত অঙ্গপ্রত্যঙ্গ নিয়ে বাড়তে থাকে। এ ত্রুটির শিকার শিশুটি দুহাতে ১০টির বদলে ১৫টি ও দুপায়ে ১০টির বদলে ১৬টি আঙুল নিয়ে জন্ম নিলেও তার কোনো হাতেই বৃদ্ধাঙুল নেই। অবশ্য হাতের তালু স্বাভাবিক আছে তার।

ব্রিটিশ দৈনিক টেলিগ্রাফ জানিয়েছে, চীনের মধ্য হুনান প্রদেশের পিংজিয়াংয়ে জন্মেছে শিশুটি। তার মায়েরও এ ধরনের সমস্যা ছিল। শিশুটিকে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে হলে বড় ধরনের অস্ত্রোপচার প্রয়োজন। এজন্য অর্থ সহায়তা যোগাড়ের চেষ্টা করছেন তার বাবা-মা।

শিশুটির বাবা জু শেংলিন চীনা দৈনিক পিপলস ডেইলিকে জানিয়েছেন, তার স্ত্রী পেশায় কারখানা শ্রমিক। তারও জন্ম থেকে প্রতিটি হাত ও পায়ে একটি করে আঙুল অতিরিক্ত ছিল। ফলে অনাগত সন্তানের দেহেও এ ধরনের সমস্যা জিনগত কারণেই যুক্ত হতে পারে বলে আহঙ্কা করেছিলেন তারা।

এ আশঙ্কায় সন্তান গর্ভে থাকা অবস্থাতেই শেনঝেনের তিনটি বড় বড় হাসপাতালে স্ত্রীকে নিয়ে গিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা করিয়েছিলেন তিনি। সে সময় চিকিৎসকরা অনাগত শিশুটির দেহে কোনো জন্মগত ত্রুটি খুঁজে পাননি।

কিন্তু হংহংয়ের জন্মের পর এ অবস্থা দেখে মুষড়ে পড়েন এ দম্পতি। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, এ সমস্যার সমাধান সম্ভব। দেহে চেতনানাশক ঔষধের ব্যবহার সহ্য করার ক্ষমতা হওয়ার মতো একটু বড় হয়ে নিতে হবে আগে শিশুটিকে। নইলে অস্ত্রোপচার সম্ভব নয়। আবার শিশু বয়সেই এ অস্ত্রোপচার করে নিতে হবে হাড়ের গঠন পুরোপুরি বিকশিত হওয়ার আগেই।

অস্ত্রোপচার ও অন্যান্য আনুষঙ্গিক খরচের পরিমাণ দাঁড়াতে পারে প্রায় ৫৩ হাজার পাউন্ড।

সর্বশেষ সংবাদ