বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সিলেট-২ আসনে ইসলামী ঐক্যজোটের মনোনয়ন পেলেন এনামুল হক মামুন



নিজস্ব সংবাদদাতা ::

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট-২ (বিশ্বনাথ-ওসমানীনগর) আসনে ইসলামী ঐক্যজোটের মনোনয়ন পেয়েছেন আ.ক.ম এনামুল হক মামুন। তিনি জেলা ইসলামী ঐক্যজোটের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এবং হেফাজতে ইসলামের অন্যতম নেতা।

ইসলামী ঐক্যজোট সূত্র জানিয়েছে- বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি রিপোর্ট, গণমাধ্যমের জরিপ এবং দলের পার্লামেন্টারি বোর্ডের নিজস্ব সোর্সের রিপোর্টের ভিত্তিতে এলাকার চাহিদা বিবেচনায় নিয়ে প্রার্থীর যোগ্যতা, জনপ্রিয়তা ও গ্রহণযোগ্যতা যাচাই করে একাদশ সংসদ নির্বাচনে সিলেট-২ আসনের প্রার্থী হিসেবে এনামুল হক মামুনকে চূড়ান্তভাবে দলের মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।

এনামুল হক মামুন জানান- গত বছরের শুরুর দিকে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে আগাম তাকে গ্রীন সিগনাল দেয়া হয়েছিল। এরপর থেকে তিনি নির্বাচনী এলাকায় সাংগঠনিক কার্যক্রম জোরদারের পাশাপাশি সর্বত্র চষে বেড়চ্ছেন। প্রার্থীতার জানান দিয়ে লিফলেট বিতরণ, ইস্যুভিত্তিক পোস্টার, ফেস্টুন ও বিলবোর্ড সাঁটানো ছাড়াও গণসংযোগ করে জনমত সৃষ্টিতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। নিয়মিত যোগ দিচ্ছেন ধর্মীয়, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়ানুষ্ঠানে। মতবিনিময় করে চলছেন বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নেতৃবৃন্দের সাথে।

তিনি আরো জানান, দীর্ঘদিন ধরে তিনি রাজনীতি ও সাংবাদিকতায় জড়িত। এর পাশাপাশি সামাজিক কর্মকান্ডে ভূমিকা পালন করে আসছেন। তার প্রার্থীতার খবরে সাড়া পড়েছে স্থানীয় জনপদে। দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে যেমন প্রাণচাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে, তেমনি সাধারণ ভোটারদের মাঝেও বিরাজ করছে অন্য আবহ। বিশেষকরে তরুণ ও উঠতি বয়সী ভোটারদের আগ্রহ চোখে পড়ার মতো। ইসলামী ঐক্যজোটের স্থানীয় নেতাকর্মীরা নিজেদের প্রার্থীর জন্য কোমর বেঁধে মাঠে নেমেছেন, আর নবীন ভোটাররা সমবয়সী প্রার্থীর পক্ষে দল ও মতের উর্ধ্বে উঠে জনমত তৈরীতে উৎসাহী হয়ে পড়েছেন।

আগামী সংসদ নির্বাচনে সকলের সহযোগিতা কামনা করে এনামুল হক মামুন বলেন- ‘আমি দীর্ঘদিন ধরে আদর্শ মানুষ গঠনে শিক্ষার প্রচার-প্রসার, মূল্যবোধ তৈরীতে সামাজিক তৎপরতা, অধিকার আদায়ে রাজনৈতিক আন্দোলন এবং জনকল্যাণ ও উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে সক্রিয় রয়েছি। দীর্ঘ এ পথচলায় জনগণের আস্থা ও ভালোবাসা আমাকে বৃহৎ পরিসরে জনকল্যাণে ভূমিকা রাখতে আশাবাদী করে তুলেছে। তাই আগামী নির্বাচনে আমি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চাই।’

তিনি বলেন- ‘সিলেট-২ আসনের ইসলাম পছন্দ বিশাল এক ভোটারশ্রেণী বিকল্প নেতৃত্বের প্রত্যাশী। তারা আদর্শ ও উন্নয়ন সমন্বিতভাবে চান।’ জনগণের সেই প্রত্যাশা বিবেচনা করে ইসলামী ঐক্যজোট তাকে মনোনয়ন দিয়েছে, তিনি সর্বস্ব দিয়ে হলেও এ আসনটি দলকে উপহার দিতে চান।