শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

জগন্নাথপুরে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে অনৈতিক কাজের অভিযোগ



জগন্নাথপুর প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার পাটলি ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ছায়াদুর রহমানের বিরুদ্ধে অনৈতিক কাজের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে এলাকায় তোলপাড় চলছে।

জানাগেছে, পাটলি ইউনিয়নের সামাট গ্রামের রুবেল মিয়া তার স্ত্রী সন্তানকে নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে একই ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রাম এলাকায় ভাড়াটে বসবাস করছেন। অভিযোগ উঠেছে পাটলি ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ছায়াদুর রহমানের সাথে রুবেল মিয়ার সুন্দরী স্ত্রী শাবানা বেগমের পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে উঠে। এরই জের ধরে গত ১১ নভেম্বর দিন দুপুরে ইউপি সদস্য ছায়াদুর রহমান ও রুবেল মিয়ার স্ত্রী শাবানা বেগমকে অনৈতিক কাজে হাতেনাতে ধরেন তার স্বামী সহ স্থানীয়রা। এ ঘটনায় রুবেল মিয়া তার স্ত্রীকে রাগের বসে মৌখিকভাবে তালাক দিয়েছেন।

এদিকে-এ ঘটনায় রুবেল মিয়া বাদী হয়ে ১৫ নভেম্বর বৃহস্পতিবার তার স্ত্রী শাবানা বেগম ও ইউপি সদস্য ছায়াদুর রহমানকে আসামী করে জগন্নাথপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য ছায়াদুর রহমান বলেন, তারা স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া নিস্পত্তি করার জন্য তার স্ত্রী অনুরোধ করায় তাদের ঘরে গিয়ে ছিলাম। এখন আমাকে অযথা ফাসানোর চেষ্ঠা করা হচ্ছে। জানতে চাইলে পাটলি ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান ওয়াহিদুর রাজা বলেন, ঘটনাটি মিথ্যা। এ ঘটনার সাথে ইউপি সদস্য জড়িত নন। তারা স্বামী-স্ত্রীর বিষয়টি নিস্পত্তি করার চেষ্ঠা করেও রুবেলের অসহযোগিতায় পারিনি।