রবিবার, ২৬ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মোমেনের হাতে ফুলের তোড়া দিলেন বিএনপির শফি চৌধুরী



নিউজ ডেস্ক:: বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক এমপি শফি আহমদ চৌধুরী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে সিলেটের রাজনৈতিক অঙ্গনে তোলপাড় শুরু হয়েছে।

জাতীয় একাদশ সংসদ নির্বাচনে সিলেট-৩ আসন থেকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত বিএনপির প্রার্থী ছিলেন তিনি। নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেনের সঙ্গে দেখা করতে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে তার সিলেটস্থ বাসভবনে যান শফি আহমদ চৌধুরী। এসময় তিনি মোমেনকে ফুলের তোড়া দিয়ে অভিনন্দন জানান।

সিলেট দক্ষিণ সুরমা উপজেলার বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ জানান, মোমেনকে ফুলের তোড়া দিয়ে শফি চৌধুরীর অভিনন্দনের ছবিটি আমিও দেখেছি। তবে আমি সিলেটের বাইরে থাকায় এ বিষয়ে কিছুই জানি না।

গতকাল রাতেই মোমেনকে ফুল দিয়ে অভিনন্দনের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। শফি আহমদ চৌধুরীও কি ইনাম আহমদ চৌধুরীর পদাঙ্ক অনুসরণ করছেন? এমন প্রশ্ন এখন সিলেটের জনসাধারণের মুখে মুখে।

তবে বিষয়টি নিয়ে শফি আহমদ চৌধুরী জানান ভিন্ন কথা। তিনি জানান, সৌজন্য সাক্ষাৎ কিংবা রাজনৈতিক কোন ফায়দা লাভের উদ্দেশ্যে আমি মোমেনের বাসায় যাইনি। সিলেটের একজন মন্ত্রী হিসেবে আমি তার কাছে গিয়েছিলাম যাতে নির্বাচনের জের ধরে আমার যেসব নেতাকর্মীদের হয়রানি করা হচ্ছে এবং আমার যেসব নেতাকর্মী এখনো কারাগারে বন্দি আছে তাদের যেনো ছেড়ে দেওয়া হয়। এসব অনুরোধ করতেই আমি তার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলাম।

আওয়ামী লীগে যোগদান করছেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, মোমেনের সঙ্গে পারিবারিক সম্পর্ক রয়েছে সত্য। মোমেনের সঙ্গে দেখা করেছি বলেই যে আমি আওয়ামী লীগে যোগদান করেছি-এ রকম প্রোপাগাণ্ডা সত্য নয়। আমি এর আগেও এরশাদ সরকারের আমল ছাড়াও অন্য সরকারের আমলেও মন্ত্রিত্বের প্রস্তাব পেয়েছিলাম। আমার রক্তে বিএনপি। বিএনপি ছাড়া অন্য কোন দলের সঙ্গে রাজনৈতিক সম্পৃক্ততা চিন্তা করতে পারি না।

এদিকে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কয়েকদিন আগে সিলেট-১ আসনে বিএনপি থেকে প্রাথমিকভাবে মনোনয়ন পাওয়া ইনাম আহমদ চৌধুরীও তৎকালীন অর্থমন্ত্রী আব্দুল মুহিত ও ড. এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে গিয়েছিলেন। পরবর্তীতে চূড়ান্ত মনোনয়ন না পেয়ে তিনি আওয়ামী লীগে যোগদান করেন।