রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ জয়সুরিয়া



স্পোর্টস ডেস্ক:: শ্রীলঙ্কার হয়ে জিতেছেন বিশ্বকাপ। ক্রিকেটও ছেড়ে দিয়েছেন অনেক আগে। এখন রীতিমত রাজনীতিবিদ এবং কাজ করছেন ক্রিকেট সংগঠক হিসেবেও। ছিলেন শ্রীলঙ্কা জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক।

অথচ, এই সময়ে এসে ক্রিকেট দুর্নীতির সঙ্গে জড়িয়ে গেলো শ্রীলঙ্কার কিংবদন্তি ক্রিকেটার সনাৎ জয়সুরিয়ার নাম এবং এই কারণে ক্রিকেট থেকে ২ বছরের জন্য তাকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে আইসিসি।

ক্রিকেট সম্পর্কিত যাবতীয় সব কর্মকাণ্ডে নিষিদ্ধ থাকবেন তিনি। আচরণবিধি লঙ্ঘন করার দায়েই নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে তাকে। জয়সুরিয়ার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ তিনি স্বীকারও করে নিয়েছেন বলে জানিয়েছে আইসিসি।

আচরণবিধি ভঙ্গের দায়ে গত অক্টোবরেই জয়সুরিয়ারের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনে আইসিসি। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের সাবেক নির্বাচক কমিটির প্রধানের বিরুদ্ধে আইসিসির অভিযোগ, তিনি দুর্নীতির তদন্তে সহযোগিতা করেননি, বরং তদন্ত বাধাগ্রস্ত করেছেন।

অভিযোগে জানানো হয়, শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক একটি সিম কার্ড লুকিয়ে ফেলেছেন। তদন্তের জন্য চাওয়া তার মোবাইল ফোনটিও দেরিতে জমা দিয়েছিলেন। যার মধ্যে সম্ভবত দুর্নীতি সম্পর্কিত অনেক তথ্য ছিল।

পরে অবশ্য জয়সুরিয়া আত্মপক্ষ সমর্থন করে বলেন, তার ফোনে ব্যক্তিগত কিছু জিনিস এবং ভিডিও ছিল, যেগুলো দুর্নীতি দমন কমিটির সামনে প্রকাশ করতে চাননি।

তবে এবার নিজের ভুল স্বীকার করেছেন জয়সুরিয়া। ৪৯ বছর বয়সী সাবেক এই ক্রিকেটার মানছেন, তদন্ত কাজে সহযোগিতা করতে ব্যর্থ হয়েছেন তিনি।

সেই সঙ্গে তথ্য গোপন, তদন্তের আলামত নষ্ট করার বিষয়টিও স্বীকার করে নিয়েছেন শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক। যারই ফলশ্রুতিতে এই দুই বছরের সাজা।

জয়সুরিয়ার এই স্বীকারোক্তি এবং সাজার ঘটনা শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটে বড় ধাক্কা নিঃসন্দেহে। দীর্ঘদিন যাবৎ দেশটির ক্রিকেটে দুর্নীতি অনিয়মের নানা অভিযোগ উঠে আসছে।