রবিবার, ২৬ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

লন্ডনে দিনে-দুপুরে চুরি ডাকাতি, আতঙ্কে বাংলাদেশীরা



প্রবাস ডেস্ক:: লন্ডন নগরী এবং এর আশপাশের এলাকায় চুরি-ডাকাতির খবর যেন এখন নিয়মিত ঘটনা। এক সপ্তাহের ব্যবধানে কেন্টের ডার্টফোর্ড এবং বেক্সলি হিথে দিনে-দুপুরে ভয়াবহ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। দুটি ঘটনায় সমান ডাকাত দল জড়িত বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। দুটি ঘটনাতেই ভুক্তভোগীরা এশিয়ান। ঘরে রাখা স্বর্ণ ও নগদ অর্থই ডাকাতদের লক্ষ্য। ডাকাত আতঙ্কে রয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশীরা।

গত ২১ ফেব্রুয়ারি ডার্টফোর্ডের লরেন্স হিল রোডের একটি বাসায় বেলা তিনটার দিকে একটি বাসার দরজায় কড়া নাড়ে। ঘরের গৃহিনী তাদেরকে চিনতে না পেরে দরজা খুলেননি। তিনি ঘরের দো-তলায় চলে যান। একটু পরই দেখতে পান, তিনজন লোক দরজা ভেঙ্গে তাঁর ঘরে ঢুকে গেছে। ছোট দুই সন্তানের সামনে তাঁর গলায় ছুরি বসিয়ে ডাকাতরা আওয়াজ করতে নিষেধ করে। তারা ঘরে তল্লাশি করে স্বর্ণালঙ্কার ও বেশ কিছু নগদ অর্থ নিয়ে যায়।

কেন্ট পুলিশ জানায়, তাঁরা বিকাল ৪টার দিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান। ঘটনায় তিনজন শ্বেতাঙ্গ যুবক জড়িত বলে জানায় পুলিশ। সন্দেহভাজনদের বর্ণনা তুলে ধরে পুলিশ জানায়, তাদের বয়স ২০ এর কোঠায়। উচ্চতা ৫ ফুট দুই থেকে ৫ ফুট তিন এর মধ্যে। তারা মুখোশ পরিহিত ছিল। একজনের পরনে ছিলো ব্লু চেক টি-শার্ট এবং ট্রাউজার। অন্যজনের পরনে ছিল কালো জগিং ট্রাউজার এবং কালো টি-শার্ট। তাদের পরিহিত পোষাকে নাইকের লগো ছিলো।

ইস্ট লন্ডনের বাসিন্দা আসাব উদ্দিন বলেন, কাজে থাকলে সার্বক্ষনিক পরিবারের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়না। এ সময় চরম উদ্বেগের মধ্য থাকতে হয়। ইদানিং কয়েকটি এলাকায় চুরি-ডাকাতি বেড়ে গেছে।

ডার্টফোর্ডের ডাকাতির ঘটনার কয়েকদিন পরই বেক্সলি হিথের একটি বাসায় ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায়ও তিনজন যুবক জড়িত। ধারণা করা হচ্ছে, সমান যুবকরাই এই ঘটনা ঘটিয়েছে।