রবিবার, ২৬ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সন্ত্রাসী হামলায় নিহত সিলেটের পারভীন : লাশ হস্তান্তর করেনি পুলিশ, স্বজনদের আহাজারি




ডেইলি সিলেট ডেস্ক:: নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত তিন বাংলাদেশির মধ্যে একজন সিলেটের হুসনে আরা পারভীন (৪২)। পারভীনের নিহত হওয়ার খবরে দেশে থাকা তার পরিবারের সদস্যরা হতভম্ব হয়ে পড়েছেন। সন্ত্রাসী হামলা থেকে বেঁচে যাওয়া পারভীনের স্বামী ফরিদ উদ্দিনের বাড়ি বিশ্বনাথ উপজেলার চকগ্রামে। আর তার স্ত্রী হুসনে আরা পারভীনের বাবার বাড়ি সিলেটের গোলাপগঞ্জের জাঙ্গাল হাটা গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের মৃত নুরুদ্দিনের মেয়ে। তারা তিন বোন ও দুই ভাই।

নিহত পারভীন সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার জাঙ্গাল হাটা গ্রামের মৃত নুরুদ্দিনের মেয়ে। নব্বইয়ের দশকের মাঝামাঝি থেকে স্বামীসহ তিনি নিউজিল্যান্ডে বসবাস করছিলেন।

নিহত পারভীনের ভাগ্নে মাহফুজ চৌধুরী বলেন, নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ এলাকায় দুটি মসজিদ রয়েছে। একটি মসজিদে নারীরা ও অন্যটিতে পুরুষরা নামাজ আদায় করেন। ঘটনার প্রায় আধঘণ্টা আগে আমার খালা পারভীন তার অসুস্থ স্বামীকে (প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত) নিয়ে মসজিদে যান। সেখানে খালা তার স্বামীকে হুইল চেয়ার করে পুরুষদের মসজিদের ভেতরে রেখে নিজে নারীদের মসজিদে চলে যান। দুটি মসজিদই পাশাপাশি। প্রায় ১৫ মিনিট পর পুরুষদের মসজিদের ভেতরে গুলির শব্দ শুনে পারভীন তার স্বামীকে বাঁচানোর জন্য বের হন। এসময় অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী তাকে গুলি করলে তিনি ঘটনাস্থলে মারা যান।

এদিকে, নিহত পারভীনের মরদেহ এখনও তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। কখন নাগাদ তাঁর মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে এমনটাও নিশ্চিত করেননি তারা।

অপরদিকে, পারভীন নিহতের ঘটনায় তাঁর নিজ বাড়ি বিশ্বনাথ ও বাবার বাড়ি গোলাপগঞ্জে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। নিহতের আত্নীয়-স্বজনদের আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠেছে এই দু’অঞ্চলের আকাশ।