শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ক্রাইস্টচার্চ হত্যাযজ্ঞ : হতাহতদের সহায়তায় ২৫ লাখ ডলার



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে গণহত্যার শিকার মানুষের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে এসেছেন বিশ্বের নানা প্রান্তের হাজার হাজার মানুষ। শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চের দু’টি মসজিদে শেতাঙ্গ এক সন্ত্রাসীর হামলার পর হতাহতদের সহায়তায় গঠিত তহবিলে এখন পর্যন্ত প্রায় ২৫ লাখ ডলার (বাংলাদেশি ২০ কোটি ৯৮ লাখ ৯৭ হাজার ৫০০ টাকা) জমা হয়েছে।

নিউজিল্যান্ডের ভিক্টিম সাপোর্ট গ্রুপ কাউন্সিল অনলাইনে তহবিল গঠনের উদ্দেশে একটি ইভেন্ট চালু করেছে। ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে নৃশংস হামলার প্রায় ১১ ঘণ্টা পর এই ইভেন্ট চালু করা হয়। গিভএলিটল নামের ওয়েবসাইটে চালু এই অর্থ সংগ্রহ তহবিলে এখন পর্যন্ত ১৬ লাখ ডলার জমা হয়েছে।

ভিক্টিম সাপোর্ট গ্রুপের এই প্রতিষ্ঠানের আহ্বানে সাড়া দিয়েছেন হাজারো মানুষ। সেখানে মানুষের সহায়তার পরিমাণ এত বেশি হয়ে পড়েছে যে, শেষ পর্যন্ত ওয়েবসাইটটি টেকনিক্যাল সমস্যার মুখোমুখি হয়েছে। পরে দ্বিতীয় একটি পেইজ চালু করতে বাধ্য হয় তারা।

একই ধরনের অাবেদন জানিয়ে তহবিল সংগ্রহ ইভেন্ট চালু করেছে লঞ্চগুড। তাদের অ্যাকাউন্টেও জমেছে প্রায় ১০ লাখ ডলার। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠান লঞ্চগুড মুসলিমদের সহায়তায় বৈশ্বিক একটি ক্রাউডফান্ডিং প্ল্যাটফর্ম। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের মুসলিমদের সহায়তার জন্য তারা এ ধরনের উদ্যোগ নেয়।

ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হতাহত ও তাদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়ে মার্কিন এই প্রতিষ্ঠান তহবিল সংগ্রহ শুরু করে। তারা বলছে, আসুন আমরা ক্রাইস্টচার্চে হতাহতের শিকার মানুষদের প্রতি আমাদের সংহতি প্রদর্শন করি। ভালোবাসা, সহনশীলতা এবং ঐক্যকে উৎসাহিত করার জন্য এই সুযোগটি গ্রহণ করি।

নিউজিল্যান্ডের ইসলামিক ইনফরমেশন সেন্টারের মাধ্যমে এই অর্থ ক্রাইস্টচার্চের ভূক্তভোগীদের পরিবারের মাঝে বণ্টন করা হবে বলে জানিয়েছে লঞ্চগুড।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে শুক্রবার জুমআর নামাজের সময় শেতাঙ্গ আধিপত্যবাদী এক সশস্ত্র সন্ত্রাসী। অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত বেন্টন ট্যারেন্ট নামের ওই সন্ত্রাসীর বন্দুকের গুলিতে ৪৯ জনের প্রাণহানি ঘটে। এই হামলায় আহত হয়েছেন আরো অন্তত ৪৮ জন।

দেশটির প্রধান জেসিন্ডা আর্ডেন ক্রাইস্টচার্চের এই হত্যাযজ্ঞকে নিউজিল্যান্ডের অন্ধকারাচ্ছন্ন দিন বলে মন্তব্য করেছেন। ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদে স্থানীয় সময় ১ টা ৪০ মিনিটে প্রথম হামলা চালায় ব্রেন্টন। ভয়াবহ এই হামলার দৃশ্য ১৭ মিনিট ধরে অনলাইনে সরাসরি সম্প্রচার করেন তিনি।

সূত্র : নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড।