বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সিলেট থেকে বিদায়ের পূর্বে অন্তরঙ্গ আলাপচারিতায় ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল



ডেইলি সিলেট ডেস্ক:: দীর্ঘদিনের কর্মস্থল শাবিপ্রবি ছেড়ে চলে যাওয়ার পূর্বে শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের সাথে অন্তরঙ্গ আলাপচারিতায় যোগ দিলেন বরেণ্য লেখক অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল। বৃহস্পতিবার বিকালে শাবিপ্রবির শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে পরিচালিত পাঠাগার ও প্রকাশনা সংস্থা লা বিবলিওতেক এর এক বছর পূর্তি উপলক্ষে এই আলাপচারিতার আয়োজন করা হয়। বৃহস্পতিবার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয় গেটে অবস্থিত লা বিবলিওতেকের পাঠাগার কক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে লা বিবলিওতেকের লেখক-পাঠক পরিবার। শাবিপ্রবির বিভিন্ন বিভাগে অধ্যয়নরত এসব শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানের প্রধান আকর্ষণ ছিলেন বরেণ্য লেখক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল এবং প্রফেসর ড. ইয়াসমিন হক। অনুষ্ঠানে লা বিবলিওতেকের পাঠক-পাঠিকাদের সঙ্গে অন্তরঙ্গ আলাপচারিতায় যুক্ত হন তারা। এ আলাপচারিতায় বাংলাদেশের শিশুসাহিত্য ও শিক্ষাব্যবস্থা নিয়ে নানান প্রত্যাশার কথা তোলে ধরেন লা বিবলিওতেকের পাঠক-পাঠিকারা। এসব শিক্ষার্থীরা বলেন, বাংলাদেশের তরুণ প্রজন্মের মধ্যে ভালো বই পড়ার আগ্রহ আশঙ্কাজনক হারে কমে যাচ্ছে। অন্যদিকে অপরাধ প্রবণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল বলেন, এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য তরুণ প্রজন্মকে তাদের মেধার ব্যবহার ও সৃজনশীলতা চর্চায় মনযোগী হতে হবে। আর বই হচ্ছে মেধা বিকাশ ও সৃজনশীলতা চর্চার সবচেয়ে সহায়ক উপকরণ। পৃথিবীর সবচেয়ে মূল্যবান সম্পদ হল বই। আর এই অমূল্য বইকে বিনামূল্যে পড়ার সুযোগ করে দেওয়ায় লা বিবলিওতেক পরিবারকে বিশেষ ধন্যবাদ জানান তিনি। লা বিবলিওতেকের পাঠক-পাঠিকাদের জন্য বেশ কিছু বই উপহার দিয়ে তিনি নিজেও এ মহতী উদ্যোগের অংশীদার হতে পেরেছেন বলে জানান তিনি। উল্লেখ্য যে, প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকেই অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল লা বিবলিওতেকের পাঠক-পাঠিকাদের জন্য বিভিন্ন ধরনের গল্প-উপন্যাস ও প্রবন্ধের বই অনুদান দিয়ে আসছেন। বর্তমানে এ পাঠাগারের সদস্য সংখ্যা সাত শতাধিক। এরা সকলেই শাবিপ্রবি শিক্ষার্থী।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বরেণ্য শিশু-সাহিত্যিক এবং লা বিবলিওতেকের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক ড. মুহম্মদ আলমগীর তৈমূর, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক ড. মানস বিশ্বাস, ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী এবং বিভিন্ন ইতিহাস গ্রন্থ প্রণেতা আসিফ আযহার, ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী আবিদ আজাদ, সাঈদ সুজন, এম. সাইফুল ইসলাম, সমাজকর্ম বিভাগের শিক্ষার্থী আতিকুর রহমান শামীম ও শারিফাতুজ জাকিয়া নিপা, বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী মুন্নী ও সাবরিনা মনীষা, অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী শিল্পী দাস, সমাজকর্ম বিভাগের শিক্ষার্থী সাব্বির প্রমুখ। অনুষ্ঠানে অতিথিদেরকে সম্মাননা ক্রেস্ট দিয়ে বরণ করে নেন লা বিবলিওতেকের স্বেচ্ছাসেবী পাঠক-পাঠিকাবৃন্দ। এছাড়াও অতিথিদের হাতে লা বিবলিওতেক পরিবারের সদস্যদের রচিত বিভিন্ন বই তোলে দেওয়া হয়।

The post সিলেট থেকে বিদায়ের পূর্বে অন্তরঙ্গ আলাপচারিতায় ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল appeared first on DAILYSYLHET.COM | SYLHET NEWS | BANGLA NEWS.