সোমবার, ২৬ অগাস্ট ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

হবিগঞ্জের তিনজনসহ সারাদেশে বজ্রপাতে নিহত ৫



নিউজ ডেস্ক:: হবিগঞ্জের ৩ উপজেলায় তিনজনসহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও কুমিল্লায় বজ্রপাতে অন্তত ৫ জন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বজ্রপাতে এ ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ, চুনারুঘাট ও মাধবপুর উপজেলায় বজ্রপাতে নিহত ৩ জন হলেন- সিজিল মিয়া (৪৫), সীমা উরাও (২৬) ও ফয়সল মিয়া (৪৫)।

পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, সকালের দিকে বৃষ্টির সময় বাড়ির পাশে হাওরে মাছ ধরতে যান নবীগঞ্জের কৃষক সিজিল মিয়া (৪৫)। এ সময় বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।এদিকে সকাল ১১টার দিকে বাড়ির পাশে ধান কাটতে যান চুনারুঘাটের চা শ্রমিক তরুণী সীমা উরাও (২৬)। কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে আকস্মিক বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।এছাড়া দুপুরের দিকে মাধবপুর উপজেলার ছানকা বুল্লা গ্রামে জমিতে ধান কাটতে যান ফয়সল মিয়া (৪৫)। এ সময় বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

হবিগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ফজলুল জাহিদ পাভেল বলেন, নিহতদের সব তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। প্রত্যেকের পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে সরকারি সহায়তা দেওয়া হবে। ইতোমধ্যে নবীগঞ্জের কৃষক সিজিল মিয়ার পরিবারকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১০ হাজার টাকা দেয়া হয়েছে।

এদিকে সন্ধ্যায় কুমিল্লার হোমনা উপজেলায় ধানি জমিতে কাজ করতে বজ্রপাতে নিহত হয়েছে স্কুলছাত্র ফাহাদ (১৪)। ফাহাদ হোমনা উপজেলার পাতালিয়াকান্দি গ্রামের মোসলেহ উদ্দিনের ছেলে ও দুলালপুর চন্দ্রমনি উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিল। বজ্রপাতে ফাহাদ নিহত হওয়ার বিষয়টি হোমনা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সরফরাজ আহম্মেদ নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলায় বজ্রপাতে রাফি উদ্দিন আহমেদ নামে এক ইমামের মৃত্যু হয়েছে। রাফি নাসিরনগর উপজেলার দাঁতমণ্ডল গ্রামের মো. শাহনেওয়াজ মিয়ার ছেলে। তিনি উপজেলার দাঁতমণ্ডল জামে মসজিদের ইমাম ছিলেন।

স্থানীয়রা জানায়, দুপুরে মুষলধারে বৃষ্টি শুরু হলে রাফি বাড়ির পাশের ধানি জমিতে কাজ করতে যান। এ সময় বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। নাসিরনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) কবির হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

The post হবিগঞ্জের তিনজনসহ সারাদেশে বজ্রপাতে নিহত ৫ appeared first on DAILYSYLHET.COM | SYLHET NEWS | BANGLA NEWS.